• শনিবার, ০৬ মার্চ ২০২১, ১০:৫১ পূর্বাহ্ন
  • English Version | Epaper
শিরোনাম :
সহকর্মী সাংবাদিক আরিফ মোটরসাইকেল এক্সিডেন্ট করে অসুস্থ তার দ্রুত সুস্থতা কামনা করছি ফরিদপুর পৌরসভায় প্রশিক্ষণ কর্মশালা শুরু মেয়েকে দিয়ে মায়ের যৌন ব্যবসা, ধর্ষণ মামলার বাদী ও চেয়ারম্যান আসামী বাইশ রশি জমিদার বাড়ি সংস্কার ও সংরক্ষণের দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত পৌর মেয়রকে সম্বর্ধনা জানালো সরকারি সারদা সুন্দরী মহিলা কলেজ এর শিক্ষক পরিষদ ফরিদপুর জেলা ছাত্রদল উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিল ফরিদপুরে আব্দুল হক স্মৃতি ব্যাডমিন্টন টুর্ণামেন্ট শুরু নোয়াখালীতে সাংবাদিক মোজাক্কির হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও কালো পতাকা মিছিল হাতিয়া নতুন সুখচর বাজার নাইট রাউন্ড রৌপ‍্যকাপ ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত উৎসবমুখর একটা দিন কাটালো ফরিদপুরের প্রাক্তন খেলোয়াড়রা
নোটিশ :
Wellcome to our website...

রংপুরে তিনজনের মৃত্যুদণ্ড, চারজনের যাবজ্জীবন

প্রথমসংবাদ ডেক্স : / ২২৬ বার
আপডেটের সময় : বৃহস্পতিবার, ৬ জুন, ২০১৯

রংপুরের পীরগঞ্জে সার ব্যবসায়ী আশরাফুল ইসলাম বুলু হত্যা মামলায় তিনজনের মৃত্যুদণ্ড ও চারজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। সোমবার বিকেলে রংপুরের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালত-২ এর বিচারক গোলাম রসুল এ রায় দেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- বিপ্লব ওরফে দীপু, সাইফুল ইসলাম ও বাদল মিয়া । যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- জহুরুল ইসলাম, শাহানুর , মিলন ও মোফাজ্জল হোসেন।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, ২০০৬ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর সার ব্যবসায়ী আশরাফুল ইসলাম বুলু পীরগঞ্জের ধাপেরহাট বাজার থেকে সার ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে পাওনা টাকা আদায় শেষে রাত ৮টার দিকে মোটরসাইকেল যোগে বাড়ি ফিরছিলেন। এ সময় পথে খেজমতপুর বাজারের কাছে একদল সন্ত্রাসী তার পথরোধ করে তাকে কুপিয়ে আহত করে এবং তার কাছে থাকা মোটরসাইকেলসহ নগদ ৪৫ হাজার টাকা ও একটি মোবাইল ফোন ছিনতাই করে নিয়ে যায়। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে প্রথমে পীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং পরে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

এ ঘটনায় পরের দিন তার বড় ভাই আমিরুল ইসলাম বাদী হয়ে পীরঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। তদন্তকালে পুলিশ সাত আসামিকে গ্রেফতার করে। এদের মধ্যে দুই আসামি সার ব্যবসায়ী বুলুকে হত্যা করে মোটরসাইকেল ও নগদ অর্থ ছিনতাই করার কথা স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন এবং ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের নাম জানান।

তদন্ত শেষে আট আসামির বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করে পুলিশ। মামলায় ১৮ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য ও জেরা শেষে সোমবার বিজ্ঞ বিচারক আসামি বিপ্লব ওরফে দীপু, সাইফুল ইসলাম ও বাদল মিয়াকে মৃত্যুদণ্ড এবং অপর চার আসামি জহুরুল ইসলাম, শাহানুর, মিলন ও মোফাজ্জল হোসেনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেন।

এ ব্যাপারে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী অতিরিক্ত পিপি ফারুখ মোহাম্মদ রেজাউল করিম জানান, দীর্ঘ ১৩ বছর পর মামলার রায় হলেও বাদীপক্ষ ন্যায় বিচার পেয়েছে। এ রায়ে তারা সন্তুষ্ট।

অন্যদিকে আসামিপক্ষের আইনজীবী সরোয়ার হোসেন জানান, তারা ন্যায় বিচার পাননি। এ রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে তারা আপিল করবেন।


এ জাতীয় আরো সংবাদ