শিরোনাম :
বাগেরহাটের মোল্লাহাটে জবাই হলো বৃদ্ধ ইউসুফ শেখ রাতের বেলা শত্রুপক্ষের হাতে সেনবাগে কালিকাপুর ছাত্র কল্যান সংস্থার উদ্দ্যোগে ঈদ পূর্ণমিলনী ও আলোচনা সভা ঘাতকদের নির্মম আঘাতে নিহত বায়োবৃদ্ধ আসাদ শেখের খুনিদের দাবিতে নিহতের পরিবার ও গ্রামবাসীর মানববন্ধন সেনবাগে কাবিলপুর একতা সমাজ সংঘের উদ্দ্যোগে ইফতার পার্টি ও ঈদ বস্র উপহার বিতরণ সেনবাগে সৈয়দ হারুন ফাউন্ডেশনের পক্ষ হতে ৪০০ পরিবারকে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ সেনবাগে সেলিম উদ্দিন কাজল এর উদ্দ্যোগে দেশবাসীর জন্য দোয়াও মেজবানী অনুষ্ঠিত সেনবাগে কাবিলমিয়া ফাউন্ডেশনের উদ্দ্যোগে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ সেনবাগে অসহায় গরীবের মাঝে প্যানেল চেয়ারম্যান স্বপনের ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ ফরিদপুর জেলা পুলিশের প্রেস ব্রিফিং অনুষ্ঠিত মীনার স্বপ্নপূরণের সহযাত্রী ফরিদপুর জেলা প্রশাসন
নোটিশ :
Wellcome to our website...

দর্শনগত ভিত্তি বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ – ফরিদপুর ডিসির ভিন্ন মাত্রার কার্যক্রম

প্রথমসংবাদ ডেক্স : / ১৭২ বার
আপডেটের সময় : বুধবার, ১১ নভেম্বর, ২০২০

ফরিদপুর প্রতিনিধিঃ হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালি, স্বাধীনতার মহানায়ক, বাংলাদেশ গড়ার কারিগর, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের পবিত্র জন্মভূমি- স্মৃতিধন্য ফরিদপুর জেলার তরুন প্রজন্মকে গুরুত্ব দিয়ে সর্ব শ্রেণির মানুষের নৈতিক ও ত্বাত্তিক উন্নয়নের জন্য এক ভিন্নধর্মী কর্ম প্রচেষ্টা শুরু করেছেন ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক অতুল সরকার। তরুনদের নৈতিক উন্নয়নের সাথে সাথে সকল শ্রেণির মানুষের মূল্যবোধ, চিন্তা, চেতনা, দর্শণগত উন্নয়ন হচ্ছে এ কর্মপরিকল্পনার মূল বিষয়।

আর এ ভিন্নমাত্রার কর্মপরিকল্পনাটি হচ্ছে জেলার প্রত্যেক ইউনিয়নের জনসমাগম স্থলে পাঠাগার এবং মুজিব পার্ক স্থাপন। কর্মকান্ডসমূহের দর্শনগত ভিত্তি হচ্ছে বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ। তবে এর সাথে অঞ্চলভেদে স্থানীয় কৃষ্টি কালচার, শিক্ষার্থীদের শিক্ষা সহায়ক পাঠ্য পুস্তক, মৌল মানবিক বিষয়সমূহসহ পাঠাগারে গুরুত্ব থাকছে।

সুস্থ –সুন্দর মননে আগামী প্রজন্মকে ধাবিত করার এ কর্মপ্রচেষ্টার অংশ হিসেবে , মঙ্গলবার জেলার সদর উপজেলার অম্বিকাপুর ইউনিয়ন, মাচ্চর ইউনিয়ন, কৈজুরী ইউনিয়নে উদ্বোধন করা হয় বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক পাঠাগার এবং কৈজুরী ইউনিয়নের তুলাগ্রামে উদ্বোধন করা হয় মুজিব পার্ক। উদ্বোধন করেন ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক অতুল সরকার।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক মোঃ মনিরুজ্জামান, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মাসুম রেজা, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আঃ রাজ্জাক মোল্লা, অম্বিকাপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ আবু সাইদ চৌধুরী বারী, মাচ্চর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ জাহিদ মুন্সি, কৈজুরী ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান মোঃ হায়দার শেখ, স্থানীয় জনসাধারণ, ছাত্র ছাত্রীসহ ব্যবসায়ীবৃন্দ।

উদ্বোধনকালে জেলা প্রশাসক অতুল সরকার তরুণ প্রজন্ম ও সর্ব শ্রেনির মানুষকে মনস্তাত্তিকভাবে সমাজ তথা দেশ বির্নিমানের অংশ হিসেবে ছেলেমেয়েদের আদর্শ মানুষ হিসেবে গড়তে তোলার আহবান জানান। তিনি বলেন, প্রকৃত বন্ধু হচ্ছে বই। ২০৪১ সালের উন্নত বাংলাদেশ পেতে হলে আদর্শ নাগরিক প্রয়োজন। বই পড়া ছাড়া এ উন্নয়ন সম্ভব নয়। পাঠাগারে বই পড়ার প্রতিযোগিত থাকলে যুবসমাজ আর মাদক, সন্ত্রাস, নারী নির্যাতনের মত ভয়ঙ্কর কাজে সময় নষ্ট করবে না। এখানে বঙ্গবন্ধুর জীবনী, মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসের বই ছাড়াও বিভিন্ন শ্রেণীর পাঠ্য বইও থাকবে। এ সময় জেলা প্রশাসক প্রতিটি পাঠাগারে ১০ হাজার টাকার বই কিনে দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেন। পরে মুজিববর্ষ পার্ক উদ্বোধন করে সেখানে একটি বৃক্ষ রোপন করেন এবং পার্কের সৌন্দর্য বৃদ্ধি করতে বিভিন্ন দিক নির্দেশনা দেন।

ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক অতুল সরকার এর আগে মুজিব শতবর্ষে উপলক্ষে জেলার সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ভিত্তিক মুজিব কর্নার ও পাঠাগার স্থাপন কার্যক্রম শুরু করেন, যা এখনো চলমান।


এ জাতীয় আরো সংবাদ