শিরোনাম :
ঘাতকদের নির্মম আঘাতে নিহত বায়োবৃদ্ধ আসাদ শেখের খুনিদের দাবিতে নিহতের পরিবার ও গ্রামবাসীর মানববন্ধন সেনবাগে কাবিলপুর একতা সমাজ সংঘের উদ্দ্যোগে ইফতার পার্টি ও ঈদ বস্র উপহার বিতরণ সেনবাগে সৈয়দ হারুন ফাউন্ডেশনের পক্ষ হতে ৪০০ পরিবারকে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ সেনবাগে সেলিম উদ্দিন কাজল এর উদ্দ্যোগে দেশবাসীর জন্য দোয়াও মেজবানী অনুষ্ঠিত সেনবাগে কাবিলমিয়া ফাউন্ডেশনের উদ্দ্যোগে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ সেনবাগে অসহায় গরীবের মাঝে প্যানেল চেয়ারম্যান স্বপনের ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ ফরিদপুর জেলা পুলিশের প্রেস ব্রিফিং অনুষ্ঠিত মীনার স্বপ্নপূরণের সহযাত্রী ফরিদপুর জেলা প্রশাসন বৃহত্তর গোয়ালচামট বাসীর পক্ষ থেকে শান্তিনিবাসে ইফতার বিতরণ সেনবাগে পৌরমেয়র প্রার্থী সাইফুল ইসলাম বাবুর করোনাকালীন খাদ্য সামগ্রী বিতরণ
নোটিশ :
Wellcome to our website...

সুধারামে ৬ জনকে নেশা জাতীয় দ্রব্য খাইয়ে দুই বাড়িতে লুটপাট

প্রথমসংবাদ ডেক্স : / ১৩২ বার
আপডেটের সময় : বৃহস্পতিবার, ৫ নভেম্বর, ২০২০

গিয়াস উদ্দিন রনি, নোয়াখালীঃ নোয়াখালীর সদর উপজেলার সুধারামের বারাহীপুরে ৬ জনকে নেশা জাতীয় দ্রব্য আইনে ৬ জনকে অজ্ঞান করে দুই বাড়ি থেকে স্বর্ণালংকার, নগদ টাকা লুট। ৬ জনকেই প্রতিবেশীরা উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেছে।
এলাকাবাসী জানায়, বুধবার রাতে সুধারাম থানার দাদপুর ইউনিয়নের বারাহীপুর গ্রামে গাছি বাড়িতে প্রবাসী নুর নবীর বাড়িতে ও একই গ্রামের নাপিত বাড়িতে ও একই গ্রামের নাপিত বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। সূত্র জানায়, প্রবাসী নুর নবীর বাড়ির পাক ঘরে থাকা ভাতের সাথে নেশা জাতীয় দ্রব্য মেশানোর ফলে রাতে খাওয়ার পর পরিবারের সদস্য প্রবাসীর স্ত্রী খুকি আক্তার (৪৫) তার মেয়ে লিলি আক্তার (২২), মেয়ে জামাতা আবুল হাসেম (৩০) অজ্ঞান হয়ে গেলে সন্ত্রাসীরা তার ঘর থেকে ৪ ভরি স্বর্ণ, নগদ ৮০ হাজার টাকা, মোবাইল, বৈজস পত্র সহ ৪ লাখ টাকার মালামাল লুট করে নেয়। সকালে কেহ ঘর থেকে বের হচ্ছে না দেখে প্রতিবেশীরা ঘরে দিয়ে এ ৩ জনকে উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে।
একই কায়দায় একই রাতে ঐ গ্রামের নাপিত বাড়িতে সন্ত্রাসীরা ঘরে রাখা ভাতে নেশা জাতীয় দ্রব্য মিশিয়ে পরিবারের মনিষ শীল, প্রমির শীল ও শ্রাবন্তী শীলকে অজ্ঞান করে ঘর থেকে মেয়ের বিয়ে উপলক্ষে কেনা স্বর্ণালংকার সহ অন্যান্য জিনিস পত্র লুট করে নেয়। এখানে আক্রান্তদেরও প্রতিবেশীরা নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেছে।
সুধারাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নবীর হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন। ২ জন সাব ইন্সপেক্টর ঘটনাস্থলে রয়েছৈ। এখন পর্যন্ত কেহ কোন মামলা করেনি।


এ জাতীয় আরো সংবাদ